যানজটে সময়কে কাজে লাগাবেন যেভাবে

রাজিউর রাহমান | প্রকাশিত: ২১ মার্চ ২০২৩, ২৩:২৮

যানজট সময়

ট্র্যাফিক জ্যামে পড়ে আমাদের অনেক মূল্যবান সময়ের অপচয় হয়। তবে চাইলে এই সময়টা কাজে লাগাতে পারেন। পিটম্যান ওয়েবসাইটসহ আরও কিছু সাইটের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এই সময়ে কী করা যেতে পারে। চলুন দেখে নেই।

বই পড়তে পারেন

জ্যামের কথা মাথায় রেখে গাড়িতে ওঠার আগে সঙ্গে বই নিয়ে নিন। জ্যামে আটকে থাকার সময়ে পড়তে পারেন সেই বই। সঙ্গে বই থাকলে নেটে সার্চ দিয়ে ফ্রিতে বিভিন্ন বইয়ের পিডিএফ ভার্সন পাবেন। পড়তে পারেন সেটাও। বই পড়ার ফলে আপনার মনের জানালা যেমনি খুলতে থাকবে তেমনি জ্যামের বিরক্তিকর সময়ও কেটে যাবে।

শুনতে পারেন রেডিও

গাড়ির এফএম রেডিও চালিয়ে দিতে পারেন। বিভিন্ন ধরনের প্রোগ্রাম শুনতে শুনতে আপনার সময় এমনিতেই কেটে যাবে।

গেমস খেলতে পারেন

সময় কাটাতে বিভিন্ন টাইপের গেমস খেলা যেতে পারে। এ ক্ষেত্রে ‘ব্রেইন ট্রেইনিং গেমস’গুলো খেলতে পারেন। এগুলো আপনার মানসিক দক্ষতা বাড়াতে সাহায্য করবে। স্মার্টফোনে এলিভেট, পিক, লুমোসিটি ইত্যাদি ব্রেইন ট্রেইনিং গেমসগুলো খেলুন। এগুলো আপনার ব্রেনকে শার্প করবে এবং চিন্তাশক্তি বাড়াবে। এ ছাড়া নিউজপেপার কিংবা ম্যাগাজিনের দেয়া কোনো মজার শব্দজট বা ধাঁধা সমাধানের চেষ্টা করতে পারেন।

পছন্দের প্রোগ্রাম দেখতে পারেন

সময়ের অভাবে হয়তো পছন্দের অনুষ্ঠান দেখতে পারছেন না। সে ক্ষেত্রে জ্যামে বসে ইউটিউবে তা দেখে নিতে পারেন। আজকাল প্রায়ই সবার হাতেই স্মার্ট ফোন। এ ছাড়া ল্যাপটপ কিংবা ট্যাব তো আছেই। সুতরাং পছন্দের যে কোনো টিভি সিরিজ দেখে নিতে পারেন।

সারা দিনের রুটিন সেট করতে পারেন

সময় কাটাতে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ভাবতে পারেন। সারা দিনের কাজের প্ল্যান, রুটিন কিংবা কোনো প্রোজেক্টের ব্যাপারে চিন্তা-ভাবনা করা যেতে পারে। আর এর ফলে মাথায় নতুন কোনো আইডিয়া এলে তা ডায়েরি কিংবা নোটবুকে টুকে রাখলে সেটা পরবর্তী সময়ে কাজে দিবে। কখন কোন আইডিয়া কাজে লেগে যায় তা তো বলা যায় না। অনেক সময় হুটহাট করে আসা কোনো আইডিয়াই সাফল্যের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যেতে পারে।

হোমওয়ার্ক বা অ্যাসাইনমেন্ট করতে পারেন

ট্র্যাফিক জ্যামের সময় শিক্ষার্থীরা প্রয়োজনীয় হোমওয়ার্ক করে নিতে পারেন কিংবা কোনো অ্যাসাইনমেন্ট থাকলে তাও রেডি করতে পারেন। এ ছাড়া চাকরি প্রার্থীরা বিভিন্ন নিয়োগ পরীক্ষার জন্য স্টাডি করতে পারেন। অনলাইনে বিভিন্ন শিক্ষামূলক সাইট আছে, যা থেকেও আপনি অনেক কিছু শিখতে পারবেন। ইউটিউবের বিভিন্ন শিক্ষণীয় টিউটরিয়াল দেখেও অনেক কিছু শেখা যায়। যেমন-ইউটিউব দেখে দেখে মাইক্রোসফট এক্সেল, পাওয়ার পয়েন্টের কিংবা টুকটাক গ্রাফিক্সের কাজও শিখতে পারবেন।

নতুন ভাষা শিখতে পারেন

মাতৃভাষার পাশাপাশি বাড়তি একটা ভাষা শিখে রাখা যেতে পারে। এতে মানুষের কাছে আপনার গ্রহণযোগ্যতা আরও বাড়বে। গাড়িতে ভাষা শিক্ষার বই রাখুন। সাহায্য নিতে পারেন ইন্টারনেটেরও। বলা ও পড়তে পারার পাশাপাশি লিখতে পারাটাও এই সময়ে শিখে নিতে পারেন।

আত্মীয়স্বজনের খোঁজ নিতে পারেন

ব্যস্ততার কারণে হয়তো কাছের আত্মীয়স্বজনের খোঁজ নেয়া হয় না। জ্যামে আটকে থাকা সময়টা কাটাতে পারেন কাছের মানুষের খোঁজখবর নিয়ে। এ সময় ফোন করতে পারেন তাদের।




পাঠকের মন্তব্য

মন্তব্য পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Top